রংপুরে মুমু কনফেকশনারী'র জরিমানা ও অসাস্থ্যকর পরিবেশে বেকারি


শরিফা বেগম শিউলী রংপুর প্রতিনিধিঃ

রংপুর নগরীর সাতমাথা এলাকায় মুমু কনফেকশনারীর মেয়াদ উত্তীর্ণ প্রোডাক্টের জন্য জরিমানা করে রংপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। শনিবার (১৪ নভেম্বর) দুপুরের দিকে সাতমাথা এলাকায় এ অভিযান চালিয়েছেন।  

উক্ত অভিযান পরিচালনার সময় সাতমাথা কনফেশনারীতে মেয়াদ উত্তীর্ণ আইসক্রিম, দই ও মুখে মাক্স না থাকার কারণে মুমু কনফেকশনারীকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।  পাশে একটা হোটেলে গেলে তারা হোটেল ছেড়ে থেকে পালিয়ে যায়। একই সাথে মাক্স ছাড়া প্রায় ১৫ থেকে ২০ জন পথযাত্রীকে চলাফেরা করার জন্য, তাদেরকে ধরে ১০০/- টাকা করে জরিমানা করেন মোবাইল কোট।

সাংবাদিকরা মুমু বেকারির কারখানাতে গেলে দেখা যায়, মাক্স হ্যান্ড গ্লোব ছারা বিভিন্ন ধরনের  রং মিশিয়ে অসাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরী করছেন। একইসাথে অপর একটি নিউ জান্নাত বেকারীর কারখানায় কোন নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে জান্নাত বেকারি অসাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরি করে আসছেন। 

সেখানে গেলে জানা যায় এক মহিলা সাংবাদিক তাদের মদদদাতা অথচ বেকারি চালানোর মতো তাদের প্রয়োজনীয় কোন কাগজপত্র নেই। সাংবাদিকরা চলে যাওয়ার পরে মহিলা সাংবাদিক এসে বেকারির মালিকের নাম্বার থেকে ফোন দিয়ে অকথ্য ভাষায় সাংবাদিকদেরকে গালিগালাজ করে। 

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফিরুজুল ইসলাম ফিরোজ বলেন, মেয়াদ উত্তীর্ণ প্রোডাক্ট বিক্রয় করার জন্য মুমু কনফেকশনারী কে ৫,০০০/- টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য