কক্সবাজারে যানজট নিরসনে হিমশিম খাচ্ছেন ট্রাফিক পুলিশ

মোঃ মনছুর আলম (এম আলম):

গেল শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে কক্সবাজার শহরকে যানজট মুক্ত রাখতে ব্যাপক তৎপরতা শুরু করেছে কক্সবাজার জেলা পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ। পর্যটন শহরে কোন গাড়ী পার্কিঙ্গের ব্যবস্থা না থাকায় যানজট নিরাসনে চরম হিমশিম খাচ্ছেন ট্রাফিক পুলিশ।

সূত্রে জানা যায়, গত কয়েকদিন ধরে কক্সবাজার ট্রাফিক পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়কে যানবাহন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে যাচ্ছে। এরইমধ্যে ব্যস্ততম পর্যটন এলাকা লাবনী, সুগন্ধা ও কলাতলী পয়েন্ট সহ শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি সড়কের আশপাশে নির্ধারিত কোন স্থানে গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা না থাকায় যানজট মুক্ত স্থানে গাড়ি রাখার জন্য চালকদের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে। যারা আইন অমান্য করে টমটম, সিএনজি ও মোটরসাইকেল সহ অন্যান্য ছোট-বড় যানবাহন সড়কের পাশে রাখছেন, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। ফলে সড়কের আশপাশে কোন পার্কিং এর ব্যবস্থা না থাকলেও ট্রাফিক পুলিশের ব্যাপক তৎপরতায় শহরের প্রধান সড়কে যানজট অনেকটাই নিরসন হয়েছে। তারপরও ট্রাফিক পুলিশের এত তৎপরতার মাঝেও পার্কিং এর অভাবে মানুষ সড়কের পাশে গাড়ি রেখে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে আসছে। এসব আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ট্রাফিক পুলিশের আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণে শহরে তেমন দীর্ঘ যানজট দেখা যায়নি। এতে দূর-দুরান্ত থেকে দূর্গাপূজার প্রতিমা বিসর্জনে সমূদ্র সৈকতে আসা ব্যক্তিরা পর্যটন শহরের সড়কগুলোতে স্বাচ্ছন্দ্যে ঘুরেছেন।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, শহরের লাবনী পয়েন্ট থেকে কলাতলী মোড় পর্যন্ত পর্যটন এলাকা ও বাজারঘাটা থেকে বার্মিজ মার্কেট পর্যন্ত বাণিজ্যিক এলাকা। এখানে শত শত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থাকলেও নেই কোনো গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা। ফলে সড়কের পাশে যানবাহন পার্কিং করতে হয় ক্রেতাদের। পূজা অথবা যে কোনো উৎসব সহ পর্যটন মৌসুমে এ এলাকায় প্রচুর মানুষের আনোগোনা হয়। সেই সাথে যানবাহনেরও চাপ বাড়ায় দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। ফলে ভোগান্তিতে পড়তে হয় ক্রেতা-বিক্রেতা সহ পথচারীদের।

ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) আমিনুল ইসলাম দৈনিক মেহেদীকে জানান, এবারের পূজাকে কেন্দ্র করে শহরকে যানজট মুক্ত রাখতে তৎপরতা শুরু হয়েছে। বিশেষ করে গাড়িগুলোকে ট্রাফিক পুলিশ একটি নির্ধারিত স্থানে পার্কিং করাতে চাইলেও, শহরে নির্দিষ্ট কোন পার্কিংয়ের ব্যবস্থা না থাকায় যানজট নিরাসনে হিমশিম খাচ্ছেন। এদিকে পর্যটক সহ সাধারণ মানুষ যাতে স্বাচ্ছন্দ্যে চলাফেরা করতে পারেন সেজন্য শহরে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট গুলোতে সবধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ট্রাফিক পুলিশ। এছাড়াও ব্যস্ততম এই পর্যটন শহরে নির্দিষ্ট স্থানে গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা করা হলে কক্সবাজার শহরকে যানজট মুক্ত করা মাত্র সময়ের ব্যাপার বলে জানান তিনি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য