প্রকাশিত সংবাদে মৌলভী আবুল হাশেমের প্রতিবাদ

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ 
২২ সেপ্টেম্বর কক্সবাজারের কয়েকটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে 'ঈদগাঁওতে চাঁদা না দেওয়ায় দোকানদারদের উপর হামলা ও প্রাণনাশের হুমকি' শিরোনামের সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোছর হয়েছে। এটি সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যেপ্রনোদিত।  


ভুল তথ্য দিয়ে এমন ডাহা মিথ্যা ও মানহানিকর সংবাদ প্রকাশ করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।


আমি মৌঃ আবুল হাশেম প্রকাশ বিমান মৌলভী সদরের ঈদগাঁও জাগীর পাড়ার বাসিন্দা। আমি একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। আমার সামাজিক ও ব্যাবসায়িক অবস্থান সবার কাছে স্পষ্ট। 


ঈদগাঁওর প্রধান সড়ক থেকে পশ্চিমে ডিসি সড়কের পতিত জমিতে নুরুল ইসলাম ও আব্দু রশিদ কবিরাজ ১৯৯৬ সালে দোকান নির্মাণ করে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। ১৯৯৮ সালে জমির মালিক ইব্রাহিমের সাথে দোকান ভাড়া চুক্তি সম্পাদন করার কথা উল্লেখ করলেও মূলত এই জমিটি ১৯৮৫ সালে মির আহমদ নিকট থেকে ক্রয় করেছিলাম। সেই থেকে ক্রয়সূত্রে আমি উক্ত জমির মালিক এবং উক্ত জমিতে দোকান নির্মাণ করে ভাড়া দিয়ে আসছিলাম। 


২০০৯ সালে নুরুল ইসলাম ও আব্দু রশিদ আমার নিকট থেকে উক্ত দোকান ভাড়া নিয়ে ২০১৯ সালে পর্যন্ত ভাড়া ঠিকমত প্রদান করে। এবছর অর্থাৎ ২০২০ সালে অন্যান্য ভূমিদস্যুদের সাথে আমার দোকানের ভাড়াটিয়া নুরুল ইসলাম ও আব্দু রশিদ আতাত করে অসৎ উদ্দেশ্যে আমাকে ভাড়া দেয়া বন্ধ করে দেয়। সেই সাথে নানাভাবে আমার জমি দখলে নিয়ে চেষ্টা চালিয়ে আসছিল। এই বিষয়ে আমি কক্সবাজার সদর মডেল থানায় নুরুল ইসলাম ও আব্দুর রশিদদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করি। 


মূলতঃ আমার জমিসহ দোকান জবরদখল, আমাকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতে সংবাদ সম্মেলনের নামে অপপ্রচার চালানো হয়েছে। 


আমার নিজের দোকান অন্যের বলে উল্লেখ করে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা হামলার অভিযোগ হাস্যকর। এসব সংবাদে আমার প্রচুর মানহানি হয়েছে। এ ব্যাপারে আমি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব। 


এমন মিথ্যা সংবাদে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য  প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি বিনীত অনুরোধ করছি।


প্রতিবাদকারী
আবুল হাশেম।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য