পীরগঞ্জ শাহ্ আব্দুর রউফ কলেজের ৮ জন শিক্ষকের সনদ ভূয়া

মাহমুদুল হাসান, পীরগঞ্জ রংপুরঃ

রংপুরের পীরগঞ্জে সরকারী শাহ আব্দুর রঊফ কলেজের ৮ জন শিক্ষক শিক্ষিকার ভুয়া সনদের সন্ধান পেয়েছে এনটিআরসিএ । আর এ ৮ শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে ।

 সংশ্লিষ্ট একাধিক সুত্রে জানা গেছে, বিগত ২০১৮ সনে কলেজটি সরকারী করন হলেও শিক্ষক শিক্ষিকারা এখনও সরকারী হিসেবে ভাতাদী পাচ্ছেন না । শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের উদ্যেগে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) শিক্ষকদের সনদ পর্যালোচনা করছেন । 

আর তা করতে গিয়ে সরকারি শাহ আব্দুর রউফ কলেজের ৮ শিক্ষকের সনদের গড়মিল পেয়েছেন এনটিআরসিএ কর্তৃপক্ষ। শাহ্ আব্দুর রউফ কলেজের ভূয়া সনদধারী ৮ জন হলো

সুরাইয়া বেগম,জিল্লুর রহমান, হুরুন্নাহার খাতুন,হাসিনা, বদরুদ্দোজা,ফারহানা, আয়শা প্রধান,কেয়া শারমিন। এনটিআরসিএ এর মতে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের সনদগুলো ভুয়া এবং জাল জালিয়াতি মাধ্যমে তৈরি করা। তাই যাচাই-বাছাই শেষে ওই ৮ শিক্ষকের সনদ ভুয়া উল্লেখ করে সরকারি শাহ আব্দুর রউফ কলেজের অধ্যক্ষকে একটি চিঠি দিয়েছে এনটিআরসিএ। 

গত ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ইং শা/আ/র/ক-১৪৩২/২০(খ) নং স্বারকে বেসরকারী শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যায়ন কর্তৃপক্ষের সহকারী পরিচালক (পমুপ্র-১) ফিরোজ আহমেদ স্বাক্ষরিত এ পত্রে  উল্লেখিত শিক্ষকদেও বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে মামলা করার জন্যও বলা হয়েছে ।

 এ ব্যাপারে সরকারি শাহ আব্দুর রউফ কলেজের অধ্যক্ষ রাশেদুন্নবী লাবু চৌধুরী জানান ৮ জন শিক্ষকের নিবন্ধন সনদ জাল কি না জানি না। তারা কোন এমপিও ভুক্ত শিক্ষক নয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য