ঠাকুরগাঁওয়ের একদিনে সর্বোচ্চ ২৫ জন করোনায় আক্রান্ত; মোট আক্রান্ত ১০৯,মৃত্যু ১,সুস্থ ২৪

মেহেদী হাসান,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁওয়ে নতুন করে ২৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ১০৯ জনে। আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলায় ১১ জন, বালিয়াডাঙ্গীতে ২ জন, রাণীশংকৈলে ৫ জন, পীরগঞ্জে ৪ জন ও হরিপুর উপজেলায় ৩ জন।আক্রান্তদের মধ্যে ১৩ জন নারী, ১০ জন পুরুষ ও ২ জন শিশু রয়েছেন। এছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে রাণীশংকৈল উপজেলার ৮০ বছর বয়সী ঢাকা ফেরত একজন মহিলা নিজ বাড়িতে মারা যাওয়ার পর মৃতদেহ থেকে সংগৃহীত নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টও পজেটিভ এসেছে।এটিই ঠাকুরগাঁওয়ে করেনায় আক্রান্তে প্রথম মৃত্যু। ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন একই পরিবারের ৫জনসহ মোট ১১জন।একই পরিবারের ৫জন আক্রান্তের বাসা শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায়। এছাড়া বাকি ছয়জনের মধ্যে সদর উপজেলার ডেনিশ পাড়ায় আক্রান্ত হয়েছেন দুইজন, রহিমানপুর ইউনিয়নের হরিহরপুর গ্রামে দুইজন, শহরের গোয়ালপাড়ায় একজন ও ঠাকুরগাঁও পুলিশ লাইন্সের পাশে আক্রান্ত হন একজন। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় আক্রান্ত হয়েছেন দুইজন। তাদের বাসা উপজেলার বড় পলাশবাড়ী ইউনিয়ন ও ধনতলা ইউনিয়নে।হরিপুর উপজেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩জন। এদের একজনের বাসা আটঘরিয়া, একজনের কালচা ও একজনের বরমপুর গ্রামে। পীরগঞ্জ উপজেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪জন। এদের মধ্যে দুইজনের বাসা উপজেলার একান্নপুর গ্রামে। একজনের বাসা জগথা গ্রামে ও বাকি আরেকজন হলেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান সহকারি। এছাড়া রাণীশংকৈল উপজেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫জন। যাদের মধ্যে ঢাকা ফেরত একজন ৮০ বছর বয়সী নারী গত ২৪মে মৃত্যুবরণ করেছেন।বাকি চারজনের বাসা উপজেলার দূর্লভপুর, চাপোর, বাঁশাইল ও লেহেম্বা গ্রামে। শনিবার (৩০ মে) রাত আটটায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা: মাহফুজার রহমান সরকার। তিনি বলেন, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ল্যাবরেটরি মেডিসিন এন্ড রেফারেল সেন্টার,শের-ই-বাংলা নগর, ঢাকা এবং এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ দিনাজপুর হতে প্রাপ্ত সর্বশেষ রিপোর্ট অনুযায়ী ঠাকুরগাঁও জেলায় আজ নতুন করে ২৫ জন (সদর উপজেলা-১১ জন, বালিয়াডাঙ্গী-২ জন, রাণীশংকৈল-৫ জন, পীরগঞ্জ-৪ জন ও হরিপুর-৩ জন) করোনা সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হয়েছেন।এদের মাঝে রাণীশংকৈল উপজেলার ৮০ বছর বয়সী ঢাকা ফেরত একজন মহিলা নিজ বাড়িতে মারা যাওয়ার পর মৃতদেহ থেকে সংগৃহীত নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টও পজেটিভ এসেছে। পূর্বের রিপোর্টসহ ঠাকুরগাঁও জেলায় এ পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ১০৯ জন, যাদের মধ্যে ২৪ জন সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র পেয়েছেন এবং মৃত্যুবরণ করেন ১জন। এছাড়াও তিনি করোনার সংক্রমণ এড়াতে সকলকে সরকারি নির্দেশনাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন। প্রসঙ্গত, গত ১১ এপ্রিলে ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে ২ জন ও পীরগঞ্জে একজনসহ প্রথম তিনজন করোনা রোগী সনাক্ত হয়। পরে ১৭ এপ্রিল রাণীশংকৈলে এক শিশু ও হরিপুরে একজন সনাক্ত হয়। এর পর ১৮ এপ্রিল আবারো রাণীশংকৈলে একজন সনাক্ত হয়। ২১ এপ্রিল সদরে একজন নারী সনাক্ত হয়। ২৬ এপ্রিল বালিয়াডাঙ্গীর লাহিড়ীতে গাজীপুরে গার্মেন্টস এ চাকুরী করা ২৭ বছর বয়সী এক যুবক করোনায় আক্রান্ত হয়। ২৭ এপ্রিল জেলার হরিপুরে ৩ জন, পীরগঞ্জে ২ জন ও বালিয়াডাঙ্গীতে একজনসহ মোট ৬ জন করোনা রোগী সনাক্ত হয়। ২৮ এপ্রিল হরিপুরে নতুন করে আরও একজন করোনা রোগী সনাক্ত হয়। ৩০ এপ্রিল নতুন করে পীরগঞ্জে এক পুলিশ সদস্য আক্রান্ত হয়েছে। গত ২ মে হরিপুরে ২ জন ও বালিয়াডাঙ্গীতে একজনসহ মোট ৩জন আক্রান্ত হয়। গত ৫ মে বালিয়াডাঙ্গীতে একজন ও সদর উপজেলার গড়েয়া গোপালপুরে একজন। ৭ মে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দরে একজন, হরিপুরের খামার কামারপুকুর এলাকায় একজন ও রাণীশংকৈল উপজেলার বন্দর এলাকায় একজন সহ মোট ৩জন আক্রান্ত হয়। গত ১১ মে পীরগঞ্জ উপজেলায় এক যুবক করোনা আক্রান্ত হয়। ১৫ মে পীরগঞ্জে একজন, বালিয়াডাঙ্গীতে একজন ও হরিপুরে এক পরিচ্ছন্নতাকর্মীসহ মোট ৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। গত ১৬ মে সর্বশেষ সদরে ১, বালিয়াডাঙ্গীতে ১, রাণীশংকৈলে ১ ও হরিপুরে ৩ জনসহ মোট ৬ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ১৭ মে হরিপুরে এক কিশোরী আক্রান্ত হয়।গতকাল ১৮ মে পীরগঞ্জ উপজেলায় নতুন করে আরও একজন নারী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। ১৯ মে বালিয়াডাঙ্গীতে ২জন ও পীরগঞ্জ এবং হরিপুরে ২জনসহ মোট চারজন করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে। গত ২০ মে পীরগঞ্জ ও রাণীশংকৈলে ২ জন পুরুষ ও বালিয়াডাঙ্গীতে একজন নারী করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে। গতকাল ২১ মে নতুন করে সদর উপজেলায় ২জন, পীরগঞ্জে ১জন ও বালিয়াডাঙ্গীতে ১ জনসহ মোট চারজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ২২ মে পীরগঞ্জে ২ জন এবং রাণীশংকৈল ও হরিপুরে একজন করে মোট চারজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আজ ২৩ মে আক্রান্ত হয়েছেন ১০জন। এদের মধ্যে বালিয়াডাঙ্গীতে ৬ জন, সদরে ৩জন ও পীরগঞ্জে একজন। গত ২৫ মে বালিয়াডাঙ্গীতে স্বামী-স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ২৭ মে সদরে দুইজন, পীরগঞ্জ একজন ও হরিপুরে একজনসহ মোট চারজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ২৮ মে সদরে ২, বালিয়াডাঙ্গীতে ৯, হরিপুরে ২, রাণীশংকৈলে ১ ও পীরগঞ্জে ৩ জনসহ মোট ১৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।আজ ৩০ মে সদর উপজেলায় ১১জন, বালিয়াডাঙ্গীতে ২ জন, রাণীশংকৈলে ৫ জন, পীরগঞ্জে ৪ জন ও হরিপুর উপজেলায় ৩ জনসহ মোট ২৫জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ১০৯ জনে। তবে এরমধ্যে শিশুসহ ২৪ জন সুস্থ্য হয়ে বাড়ী ফিরেছেন আর মৃত্যুবরণ করেছেন একজন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য