রাতের আঁধারে বাড়ি বাড়ি গিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানের খাদ্য বিতরণ

জালাল উদ্দিন, গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি
জনপ্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালনে সব সময় এগিয়ে একজন চেয়ারম্যান। শীত বর্ষাসহ যে কোনো দূর্যোগ ও মহামারিতে তিনি গরিব-অসহায় মানুষের সেবায় সবসময় নিরলস পরিশ্রম করেন তিনি। প্রাণঘাতী বৈশ্বিক মহামারি করোনায়ও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। রাতের আঁধারে বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রকৃত গরিব অসহায়দের ঘরে ঘরে নিজ হাতে বিতরণ করছেন খাদ্যসমগ্রী। তিনি এ পর্যন্ত ২ হাজার দুই’শ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন। তার এ কাছে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেছেন ২০ জন সেচ্ছাসেবক।
নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন। চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার আগেও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে তিনি ছিলেন সব মানুষের পাশে। তার উপজেলার প্রায় প্রতিটি গ্রামেই ধারাবাহিকভাবে রাতের আঁধারে বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রকৃত গরিব-অসহায়দের মাঝে বিতরণ করে যাচ্ছেন খাদ্যসামগ্রী।
বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে উপজেলার সাধারণ গরিব ও অসহায় মানুষ গৃহবন্দি। চেয়ারম্যান হিসেবে মানুষের এ দুঃসময়ে পালন করে যাচ্ছেন যথাযথ দায়িত্ব। দেশের প্রতিটি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানদের উচিত যথাযথ দায়িত্ব পালন করে অসহায় জনগণের পাশে থাকা।

শুধু গরিব অসহায়দের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করে থেমে থাকেনি এ চেয়ারম্যান। উপজেলার যেসব দিনমজুর, সিএনজি, অটো ও রিক্সা-ভ্যান চালক কর্মহীন হয়ে পড়েছেন তাদের সহযোগিতায় খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করছেন চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন।
চেয়ারম্যান নিজ তহবিল থেকে চাল, আলু, তেল, সাবান ও ডাল বিতরণ করে যাচ্ছেন। এসব সামগগ্রী সেচ্ছাসেবকের মাধ্যমে রাতের আঁধারে নিজে বাড়ি বাড়ি গিয়ে গরিবদের মাঝে পৌছে দিয়ে জনসেবার অনন্য কৃতিত্ব অজর্ন করছেন তিনি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য