নাটোরের গুরুদাসপুরে মৃত্যুর ৪ মাস ৭ দিন পর ময়না তদন্তের জন্য কবর থেকে লাশ উত্তোলন

মোঃ শরিফ, নাটোর :
নাটোরের গুরুদাসপুরে নজরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তির মৃত্যুর মাস দিন পর ময়না তদন্তের জন্য কবর থেকে লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে নাটোরের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের নির্দেশে চাঁচকৈড় কেন্দ্রীয় কবরস্থান থেকে এই লাশ উত্তোলন করা হয়। নিহত নজরুল ইসলাম উপজেলার চাঁচকৈড় মধ্যমপাড়া গ্রামের মৃত আতাহার আলীর ছেলে।
গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাহারুল ইসলাম জানান, গত ১৩ অক্টোবর চাঁচকৈড় মধ্যমপাড়া গ্রামের মৃত আতাহার আলীর ছেলে স্থানীয় ইট ভাটা ব্যবসায়ী জাহিদুর রহমানের ভাটার ম্যানেজার শহিদুল ইসলাম মারা যায়। সে সময় তার স্বাভাবিক মৃত্যুর কারনে কোন রকম ময়না তদন্ত না করেই নিহতের মরদেহ দাফন সম্পন্ন হয়। পরে নিহতের ছেলে সোবাহান আলী বাদী হয়ে তার বাবাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ইট ভাটা ব্যবসায়ী জাহিদুর রহমান সহ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরর পর নাটোরের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মুক্তা পারভীন কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের নির্দেশ দেন। এরই প্রেক্ষিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাসলিমা খাতুনের উপস্থিতিতে কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য