নাটোরের গুরুদাসপুরের ১৬ টি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত সহ মোট ৩৭ মামলার পলাতক আসামীকে ঢাকার মিরপুর থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

মোঃ শরিফ, নাটোর :
নাটোরের গুরুদাসপুরের ১৬ টি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত সহ মোট ৩৭ মামলার পলাতক আসামী চাউল ব্যবসায়ী সাবেন আলী শাহকে ঢাকার মিরপুর থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতরাতে তাকে মিরপুরের বড়বাগ এলাকা থেকে গ্রেফতারের পর আজ দুপুরে নাটোরের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে তাকে নিয়ে আসা হয়। গ্রেফতারকৃত সাবেন আলী গুরুদাসপুর উপজেলার চাঁচকৈড় পুরানপাড়া মহল্লার বাশেদ আলীর শাহর ছেলে।
নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, গুরুদাসপুরের চাউল ব্যবসায়ী সাবেন আলী চাচকৈড় বাজার থেকে চাউল ক্রয় করে ঢাকার বিভিন্ন মোকামে বিক্রয় করতেন। ব্যবসায় ধারাবাহিক ভাবে লোকসানের কারনে তিনি অর্থনৈতিক ভাবে নিঃস্ব হয়ে যান। এতে সে অন্তত ৫০ জন ব্যবসায়ী তার কাছ থেকে প্রায় ১৫ কোটি টাকা পাওনা হয়। পরে সে বিভিন্ন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে বাঁচতে তাদের øাঙ্ক চেক প্রদান করেন। কিন্তু সেই ব্যাংক একাউন্টে কোন টাকা না থাকায় চেকগুলো ডিজওনার হয়। এরপর ওই সকল ব্যবসায়ীরা গুরুদাসপুর থানা সহ আদালতে তার বিরুদ্ধে ৩৭ টি মামলা দায়ের করেন। এই সকল মামলার মধ্যে ১৬ টি মামলায় তাকে এক বছর করে কারাদন্ড প্রদান করেন আদালত। এছাড়াও বাঁকী ২১ টি মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী হয়। সাজা গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী হওয়ার পর গত তিন বছর আগে সে গুরুদাসপুর থেকে পালিয়ে যায়। এরপর পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে জানতে পারেন সাবেন আলী ঢাকায় আত্মগোপন করে রয়েছে। পরে দিন টানা অভিযান করে ঢাকার মিরপুরের বড়বাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে গুরুদাসপুর থানা পুলিশ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য