ডিমলায় পলিথিন ব্যবহার ও মাক্স পরিধান না করায় ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা


জাহাঙ্গীর রেজা, নীলফামারীঃ
 

নীলফামারীর ডিমলায় প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহারের অপরাধে দুই কাঁচামাল ব্যবসায়ীকে ৪ হাজার ও মাক্স পরিধান না করায় ৬ জন অটোচালক এবং ৮ মটর সাইকেল আরোহীকে ৫ হাজার ২ শত টাকা  জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার (২৫ নভেম্বর) বিকেলে ডিমলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়শ্রী রানী রায় এ জরিমানা করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, ডিমলাসহ পরো উপজেলায় বিভিন্ন হাট-বাজারে নিষিদ্ধ পলিথিনের ব্যাপক ব্যবহার। 

পরিবেশ ও জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক এসব পলিথিনে খাদ্যসহ নানান পণ্য ক্রেতাদের হাতে তুলে দিচ্ছেন সব ধরনের ব্যবসায়ীরা। ফলে থেকেই যাচ্ছে স্বাস্থ্যঝুঁকি। তাই পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন ২০১০ অমান্য করে কৌশলে পলিথিনের ব্যাগ ও বস্তা ব্যবহার করায় দুটি দোকানে ৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অপরদিকে মাস্ক পরিধান না করায় উপজেলা স্মৃতি অম্লান চত্ত্বরে অভিযান চালিয়ে ৮ জন মটর সাইকেল আরোহী ও ৬ জন ব্যাটারী চালিত অটোবাইক চালককে বিভিন্ন পরিমানে ৯ হাজার ২ শত টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট জয়শ্রী রানী রায় বলেন, মাস্ক পরার জন্যে প্রথম থেকেই সচেতনতা কার্যক্রম চালিয়ে আসছে উপজেলা প্রশাসন। এখনও আমরা প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। দেখা যায়, এরপরও অনেকেই অবহেলা করে মাস্ক পরছেন না। যার ফলে তাদের মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আটক সহ অর্থদণ্ড দেওয়া হচ্ছে।  মাস্ক পরতে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে। ভ্রাম্যমাণ আদালতকে সহায়তা করেন উপজেলা পাট উন্নয়ন অফিসার মহিবুর রহমান লোহানি, ডিমলা থানার এ.এস.আই মাহাবুব হোসেন সহ সঙ্গীয় ফোর্স, পেসকার রোকুনজ্জামান রোকন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য