নারীদের প্রতি ধর্ষণ এবং সহিংসতার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে রংপুর মহনগরী, বিক্ষোভে পুলিশের বাধা


বিশেষ প্রতিনিধিঃ

বিচারহীনতা এবং রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় ধর্ষন অতীতের সকল সময়কে হার মানিয়েছে, উল্লেখ করে ধর্ষনের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড এবং সেটাও প্রকাশ্যে দেয়ার দাবিতে সকাল থেকে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে রংপুর মহানগরী। আজ সকাল ১১ টায় রংপুর নগরীর প্রেসক্লাব, লালবাগ ও কাচারীবাজার এলাকায় ধর্ষণ ও নিপীড়ন বিরোধী ছাত্র জনতার ব্যানারে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ হয়।

প্রেসক্লাবের সামনে জেলা ছাত্র পরিষদ ও বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ রংপুর জেলা শাখা, রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ও কারমাইকেল কলেজের সামনে শিক্ষার্থীরা মানবন্ধন করেন। ধর্ষন ও নীপিড়ন বিরোধী ছাত্র জনতার মানববন্ধন। মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভ বের করলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়।  

এসময় বক্তারা বলেন, বিচারহীনতা এবং রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় ধর্ষন অতীতের সকল রেকর্ড ছাড়িয়েছে। ধর্ষনের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড এবং তা প্রকাশ্যে কার্যকর করার দাবি তাদের।

আন্দোলনকারীদের লেখা প্লাকার্ড বুকে নিয়ে কয়েক হাজার শিক্ষার্থী কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছে। প্লেকার্ডে লেখা ছিলো- ছাত্রলীগ ধর্ষন করে, শেখ হাসিনা কি করেন? মা উলঙ্গ হয়ে থাকলে, তোদের গায়ে কি থাকে? দ্যা ইন্ড দা রেপ কালচার, ধর্ষকের পাহারাদার লজ্জাহীন এই সরকার, 

ক্ষমতার নাকে দড়ি দিয়ে ধর্ষক বাঁচে বুক ফুলিয়ে। পরিশেষে প্রেস ক্লাবের সামনের মানববন্ধনে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক  ও পেশাজীবী সংগঠনের পক্ষ থেকে একাত্ততা প্রকাশ করা হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য