সৈয়দপুরে পৌর পাইকারী কাঁচা সবজি আড়ত নয়াবাজারে পুনঃস্থাপনের দাবিতে কাফনের কাপড় পড়ে ব্যবসায়ীদের পৌরসভা ঘেরাও

মিজানুর রহমান মিলন সৈয়দপুর প্রতিনিধিঃ
নীলফামারীর সৈয়দপুরে পৌর পাইকারী কাঁচা সবজি আড়ত শহরের নয়াবাজার পুনঃস্থাপনের দাবিতে কাফনের কাপড় পড়ে সৈয়দপুর পৌরসভা কার্যালয় ঘেরাও করেছে ব্যবসায়ীরা। 

আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় মিছিল সহকারে সৈয়দপুর পৌরসভা কার্যালয়ে গিয়ে ওই কর্মসুচি পালন করেন তারা। এ সময় সংগঠনের পক্ষ থেকে পৌরসভা মেয়র বরাবরে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন নেতৃবৃন্দ। 

মেয়রকে দেয়া স্মারকলিপিতে বলা হয়, সৈয়দপুর পৌরসভা কর্তৃক শহরের নয়াবাজার এলাকায় দীর্ঘ প্রায় ২৫ বছর আগে পৌর পাইকারী কাঁচা সবজি আড়তটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। ওই আড়তে শাক-সবজি, আলু, রসুন, আদা, পেঁয়াজ, মরিচ, লেবু, শসা প্রভূতি পাইকারী বেচাবিক্রি হয়ে থাকে। সৈয়দপুর উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন  ও পৌর এলাকা ছাড়াও দিনাজপুরের পাবর্তীপুর, চিরিরবন্দর, খানসামা, রংপুরের বদরগঞ্জ, তারাগঞ্জ এবং নীলফামারী সদর ও কিশোরগঞ্জ উপজেলার কৃষকরা তাদের জমিতে উৎপাদিত কৃষি পণ্য নিয়ে এসে সৈয়দপুর পৌর পাইকারী সবজি আড়ত নয়াবাজারে বিক্রি করেন থাকেন। 

আর উল্লিখিত এলাকার খুচরা সবজি বিক্রেতারাও এ পাইকারী আড়ত থেকে বিভিন্ন কৃষি পণ্য কিনে নিয়ে গিয়ে ভোক্তা সাধারণের কাছে বেচাবিক্রি করেন। সকাল থেকে শুরু হয়ে বেলা ১টার মধ্যে এ পাইকারী বাজারে কৃষি পণ্য বেচাবিক্রির কর্মকান্ড সম্পন্ন হয়ে থাকে। স্মারকলিপিতে এ কাঁচা সবজি আড়তের দৈনন্দিন কর্মকান্ডের কারণে সৈয়দপুর শহরে যানজটের সৃষ্টি হয় না বলে দাবি করা হয়। 

এদিকে, চলমান বৈশ্বিক কারোনা ভাইরাসের সংক্রমন রোধে  ও জনসমাগম এড়াতে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে বেচাবিক্রির উদ্দেশ্যে শহরের নয়াবাজার পৌর পাইকারী  কাঁচা মালের সবজি আড়তটি সৈয়দপুর-দিনাজপুর বাইপাস সড়কের পাশে মিস্ত্রিপাড়া এলাকায় গত ১৩ মে উপজেলা প্রশাসনের মৌখিক নির্দেশে ব্যক্তি মালিকাধীন জায়গায় স্থানান্তর করা হয়। 


কিন্তু গত ৩১ মে সরকারি ছুটি তথা লকডাউন শিথিল করা হলে আড়তদার ব্যবসায়ীরা নয়াবাজার পাইকারী কাঁচা সবজির আড়তে পুনরায় আড়তদারী ব্যবসা শুরু করেন। 


এ অবস্থায় গত ১০ জুন সৈয়দপুর পৌরসভার মেয়র অধ্যক্ষ মো. আমজাদ হোসেন সরকারের পক্ষ থেকে একটি ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এতে সৈয়দপুর বাইপাস মহাসড়কের পাশে শহরের মিস্ত্রিপাড়া এলাকায় স্থানান্তরিত  সৈয়দপুর পৌর পাইকারী সবজি আড়তে কৃষি পণ্যের বেচাবিক্রির জন্য বলা হয়। 


আগামী ১৩ জুনের মধ্যে সকল আড়তদার ব্যবসায়ীকে এ নিদের্শ মেনে চলতে বলা হয়েছে। অন্যথায় এ নির্দেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে ঘোষণায় বলা হয়। এতে করে পৌর পাইকারী সবজি আড়দতাররা চরম বিপাকে পড়েন। তারা পৌর মেয়রের ওই ঘোষণা প্রত্যাহার এবং পৌর পাইকারী কাঁচা সবজি আড়ত নয়াবাজারে পুনঃস্থাপনের দাবি জানান। 

আর ওই দাবিতে আজ  বৃহস্পতিবার বিপাকে পড়া ব্যবসায়ীরা কাফণের কাপড় পড়ে সৈয়দপুর পৌরসভা কার্যালয় ঘেরাও করেন। এ সময় তারা পৌর মেয়র বরাবরে তাদের দাবির সম্বলিত একটি স্মারকলিপি দেন পৌর মেয়র অধ্যক্ষ মে. আমজাদ হোসেন সরকারের হাতে। 


এসময় ব্যবসায়ীদের দেওয়া স্মারকলিপি গ্রহন করে পৌর মেয়র অধ্যক্ষ মো. আমজাদ হোসেন সরকার বলেন, সৈয়দপুর  উপজেলা প্রশাসন, পৌর পরিষদ ও পাইকারী সবজি ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বসে আলাপ আলোচনা করে বিষয়টির সুষ্ঠু সমাধানের উদ্যোগ গ্রহন করা হবে। এদিন ব্যবসায়ীরা কাফণের কাপড় পড়ে শহরে মিছিলও করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য