দখলবাজদের কাছ থেকে জমি উদ্ধারে প্রশাসনের সহযোগিতা চায়

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
কক্সবাজার সদর উপজেলার পিএমখালী চেরাংঘর এলাকায় ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে এক সৌদি প্রবাসীর জমি জবরদখল করেছে চিহ্নিত দখলবাজরা এমন অভিযোগ জমি মালিকের। এই দখলবাজদের হাত থেকে জমি উদ্ধারে কক্সবাজার জেলা ক্যালেক্টর( জেলা প্রশাসক), জেলা পুলিশ সুপার মহোদয় ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে আকুল আবেদন করেন প্রবাসী আলতাজ আহাম্মদ। এই ঘটনার পর থেকে চরম দিশাহারা হয়ে পড়ছে প্রবাসী আলতাজ আহাম্মদের পরিবার ।  প্রতিপক্ষের অব্যহত হুমকির মুখে চরম নিরাপত্তাহীনতার রয়েছে ভুক্তভোগীরা। তার দাবি বিচারের নামে স্থানীয় একটি চক্র কয়েক লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ করেন তিনি। 

জানা যায়, পিএমখালী ইউনিয়ন এর    উত্তর ডিকপাড়ার মাস্টার জাফর আলমের পুত্র সৌদি প্রবাসী আলতাজ আহমদ বিগত ১১ সালে স্থানীয় ওবাইদলুল হাকিমের  অংশ থেকে দলিল মুলে ৪০ শতক জমি ক্রয় করেন। এর কিছু দিন যেতে না যেতে ষড়যন্ত্রের রোষানলে পড়েন তিনি, মিথ্যা তথ্য দিয়ে আলতাজের বিরুদ্ধে 
দেড়  বছর পরে আদালতে  মামলা করেন ওবাইদুল, ওবায়দুস সলাম। তাদের সাথে দীর্ঘ ৪ বছর আদালতে লড়াই করে  আলতাজ আহাম্মদ  মামলা রায় পায় বলে জানান তিনি । আলতাজ
বিদেশ থেকে আসার পরে ওই জমিতে মাটি ভরাট করতে গেলে বাধা প্রদান করে স্থানীয় গোলাপাড়া এলাকার দিদারুল আলম, সিরাজুল হক, মোক্তারকুল এলাকার শহীদ আল্লাহ, সোলাইমান,  ওয়াহিদুল আলম,শাহ আলম,নুরুল আলম,আনিসুর রহমান, ওবায়দুস সালাম, ওবাইদুর রহিমসহ সংঘবদ্ধ দখলবাজ চক্র। তারা আলতাজের ১০ শতাংশ জমি জবরদখল করে ইট দিয়ে ঘেড়া-বেড়া নির্মাণ করে। এঘটনায়  জমি মালিক আলতাজ আহাম্মদের আবেদনের প্রক্ষিতে ওই জমির উপর গত ১১ মার্চ  ৮৬৫ স্মারক(এডিএম) মুলে ফৌজদারি কার্যবিধি ১৪৪ ধারা জারী করেন আদালত । এর পরেও দখলবাজ চক্র এই নিরিহ প্রবাসীর জমিটি জবর দখল করে ইটের দেয়াল তৈরি করে দিদারুল আলম কোম্পানি নাম ব্যবহার করে একটি অবৈধ সাইন বোর্ড ঘেড়ে দেন তারা। দখলবাজদের অব্যহত হুমকির মুখে চরম অসহায় হয়ে  পড়ছে জমি মালিক আলতাজ। যেন  এখানে মগের মুল্লুক। প্রতিনিয়ত দুপক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষের আশংকা করছে এলাকাবাসী। 

কক্সবাজার সদর পাতলী মাছুয়াখালী (পিএমখালী) মৌজার বিএস ৭৪০  নং খতিয়ানের রেকর্ডীয় মালিক ওবায়দুল হাকিমের অংশ থেকে কবলা দলিল মূলে আলতাজ আহাম্মদ সৃজত বি.এস খতিয়ান নং ৩৯৩৭, সৃজত বি এস দাগ নং ৮৮১১/২১৪২৯ আন্দর
৪০ শতক জমি ক্রয় করেন। এরপর  থেকে  এই  জায়গায় আলতাজ  এই জমি ভোগ দখল করে আসছে।  কিন্তু সম্প্রতি জমির মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় ওই জায়গার উপর লুপালো দৃষ্টি পড়ে স্থানীয় দখলবাজ চক্রের। গেল ২০ রমজান দখলবাজ এই চক্রটি আলতাজের ১০ শতক জমিটি আবারও  জোরপূর্বক দখল নিয়ে নেয়ার চরম অভিযোগ তাদের বিরুদ্ধে । এই নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিবার বিচার-সালিশ হলেও এখনো কোন সুরাহা মিলছে না।

একের পর এক হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছে বলে জানান ভুক্তভোগী পরিবার।  সম্পূর্ণ সন্ত্রাসী কায়দায় দিদারুল আলম কম্পানি নামে একটি সাইনবোর্ড লাগিয়েছে রেখেছে বলে অভিযোগ আলতাজের পরিবারের।  তারা বর্তমানে জমিতে ইটের দেওয়াল তৈরির কাজ অব্যাহত রেখেছে বলে জানাগেছে।

সৌদি প্রবাসী নিরীহ আলতাজের জমিতে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করার অপরাধে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে  প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন ভুক্তভোগী আলতাজ আহাম্মদের পরিবার।

দেশের আইন আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে রাতারাতি দেওয়াল নির্মাণ করে জমি  দখল  করায় এই প্রবাসীর সারা জীবনের অর্জিত সম্পদ হারিয়ে চরম অসহায়ত্বের মধ্যে দিনাতিপাত করছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য