চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন রিপোর্টার্স ইউনিটির সাথে "অঙ্গীকার বাংলাদেশ" এর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

মোহাম্মদ হায়দার আলী, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন রিপোর্টারস ইউনিটির সাথে মানবিক সমাজ সেবামূলক সংগঠন "অঙ্গীকার বাংলাদেশ " এর মতবিনিময় সভা গত ১৭ মে বিকাল ৩ ঘটিকায় নগরীর জামালখানস্থ কদম মোবারক মসজিদের সামনে শারিরীক দুরত্ব বজায় রেখে অনুষ্ঠিত হয়। 

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন রিপোর্টার্স ইউনিটির আহবায়ক মোঃ জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে এবং সাংবাদিক তানবির আহমেদ এর সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় উন্নয়ন ও জনকল্যাণমুখী মানবিক সংগঠন "অঙ্গীকার বাংলাদেশ" এর চেয়ারম্যান ক্যাপ্টেন আতিক খান বলেন, 

সাংবাদিকরা জাতির মাধ্যম। সাংবাদিকরা সমাজের দর্পন। সাংবাদিক তথা মিডিয়ার মাধ্যমে আমাদের কার্যক্রম গুলো সহজে জাতির কাছে পৌছায়। আমাদের এই সংগঠন মানব কল্যাণ মুলক সংগঠন ইতিপূর্বে ও মানবকল্যানে অনেক কাজ করে আসছে
আগামীতে ও এর ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। 

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাস জনিত সংকটে আয়হীন হয়ে পড়া অসহায় জনগনকে প্রতিদিন সংকট কালীন খাদ্য সহায়তা প্রদান করছে। দেশব্যাপী আমাদের সংগঠনের কার্যক্রম বিদ্যমান রয়েছে। তিনি সাংবাদিকদের সামনে বাংলাদেশ এর জন কল্যাণমুখী কার্যক্রমের অংশবিশেষ তুলে ধরেন এবং প্রচার প্রসারে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেন। 

সভায় সাংবাদিকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন রিপোর্টারস ইউনিটির যুগ্ম আহবায়ক কবি ও সাংবাদিক মোঃ কামাল হোসেন। সাংবাদিক কামাল হোসেন তার বক্তব্যে বলেন, চিকিসৎক-স্বাস্থ্য কর্মী, আইন শৃঙ্খল বাহিনীর পাশাপশি মিডিয়া কর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে। 

ইতিমধ্যে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে বেশকিছু সাংবাদিক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। সারা দেশে লকডাউনে আর্থিক সংকটের কারণে বিজ্ঞাপন না থাকায় দৈনিক সংবাদপত্র, টিভি চ্যানেলও অনলাইন নেউজ পোর্টাল প্রকাশনা অব্যহত রাখা দুরহ হয়ে পড়েছে।

এদিকে  অনেক প্রতিষ্ঠান আর্থিক চরম সংকটের কারণে সংশ্লিষ্ট সাংবাদিক ও সংবাদকর্মীরা বেতন ভাতাদি নিদিষ্ট সময়ে প্রদান না করায় সাংবাদকর্মীদের পরিবার আর্থিক কষ্টে দিন যাপন করছে। এমতবস্থায় দেশের সরকার, বিত্তশালীকে তৃণমূল সাংবাদিকদের পাশে থাকার আহবান জানান সাংবাদিক কামাল।

সভার সভাপতি, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন রিপোর্টারস ইউনিটির আহবায়ক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বৈশ্বিক মহামারির এই সময়ে অসচ্ছল সাংবাদকর্মীদের জন্য সরকারি ও বিত্তশালীদের সহায়তার কোন বিকল্প নাই মন্তব্য করে যথাযথ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, সরকার ঘোষিত প্রনোদনায় চট্টগ্রামের অসচ্ছল তৃণমূল সাংবাদিকদেরও অর্ন্তভুক্ত করুন। 

এছাড়া আরও বক্তব্য রাখেন আহ্ববায়ক কমিটির সদস্য আবদুল আউয়াল মুন্না সহ অনেক নেতৃবৃন্দ ।
মতবিনিময় শেষে মানবিক সমাজ সেবামূলক সংগঠন অঙ্গীকার বাংলাদেশের পক্ষ থেকে প্রায় ৪০ জন অসচ্ছল সাংবাদিককে মাক্স পিপিই সহ সংকটকালীন উপহার সামগ্রী প্রদান করলেন সংগঠনের চেয়ারম্যান ক্যাপ্টেন আতিক খান। 

একই সাথে অঙ্গীকার বাংলাদেশের পেইজে, গ্রুপে এবং মোবাইলে আসা বিভিন্ন অভাবগ্রস্থ মানুষের অনুরোধে প্রায় ৫০০ এর মত নিম্নমধ্যবিত্ত আর মধ্যবিত্ত পরিবারে কাছে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছে অত্র সংস্থাটির স্বেচ্ছাসেবকরা। 

এসব কাজে ব্যবহৃত হয়েছে একটি টেম্পু ভ্যান এবং স্বেচ্ছাশ্রম দেয়া তিনজন মহৎপ্রাণ প্রাইভেট গাড়ির মালিক। যখনই ডাকা হয়েছে উনারা গাড়ি নিয়ে উপহার বিতরণে উপস্থিত হয়েছেন, ছুটে বেড়িয়েছেন শহরের বিভিন্ন প্রান্তে। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অঙ্গীকার বাংলাদেশ এর সদস্য আতিক উল আজম খান, শহীদুল ইসলাম মামুন, নাজিম উদ্দীন রিফাত,মোহাম্মদ হেমায়েত উদ্দিন ডেনিম,মোহাম্মদ মোস্তফা আকবর চৌধুরী,ওয়াসিম আকরাম, ইমতিয়াজ আহমেদ, গিয়াস উদ্দিন রনি, সানাউল্লাহ শুভ,জাবেদুল ইসলাম,আকাশ,নাদিম মোস্তফা, শাহরিয়ার মাহমুদ ঈশাদ,আল আমিন, আরেফীন আসিফ,সাজিদুর রহমান,সোহাগ খান, সাগর,জাহিদ হোসেন,রাব্বি প্রমুখ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য