সৈয়দপুরে খাবার অনুপযোগী চাল বিক্রি ও মজুদের দায়ে ব্যবসায়ীর জরিমানা

মিজানুর রহমান মিলন সৈয়দপুর  প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুরে খাবার অনুপযোগী ও নিম্নমানের চাল বিক্রি এবং মজুদের দায়ে এক চাল ব্যবসায়ীর তিন হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত। আজ বৃহস্পতিবার। ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সৈয়দপুর উপজেলা সহকার কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার ওই দন্ডাদেশ দেন। ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, সৈয়দপুর শহরের চাল মার্কেটের চালের আড়তদার মো. শামীমের (৩২) চালের আড়ত থেকে কয়েকদিন আগে শহরের কাজীপাড়া এলাকার বাসিন্দা গো খাদ্য ব্যবসায়ী সাহেব আলী দুই বস্তা গুটি স্বর্ণা  চাল ক্রয় করেন। পরবর্তীতে গতকাল বুধবার ওই ক্রেতা ক্রয়কৃত চালের বস্তা খুলে দেখতে পান  চালগুলো নিম্নমানের এবং খাবারের অনুপযোগী। পরে ক্রেতা তাঁর ক্রয়কৃত চালের বস্তা নিয়ে গিয়ে ফেরত দিতে চাইলে চাল ব্যবসায়ী মো. শামীম তা  ফেরত দিতে অস্বীকৃত জানান। এ অবস্থায় চালের ক্রেতা নিরুপায় হয়ে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সৈয়দপুর শহরে মনিটরিংয়ে থাকা  সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.  নাসিম আহমেদ ও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকারকে অভিযোগ করেন। ক্রেতার অভিযোগ পেয়ে সৈয়দপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকারের নেতৃত্বে এক অভিযান চালিয়ে চাল ব্যবসায়ীর আড়তে নিম্নমানের মানুষের খাবারের অনুপযোগী চাল মজুদ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে খাবার অনুপযোগী ও নিম্নমানের  চাল বিক্রি ও মজুদের দায়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে চাল ব্যবসায়ী মো. শামীমকে তিন হাজার টাকা জরিমানা করেন। ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার।
অর্থ দন্ডপ্রাপ্ত শামীম সৈয়দপুর শহরের হাওয়ালদারপাড়ার বাসিন্দা মো. ইয়াছিন আলী ছেলে বলে জানা গেছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য