প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নিখোঁজের নাটক!


নিজস্ব প্রতিবেদক,গুরুদাসপুর
নাটোরের গুরুদাসপুরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নিখোজ হওয়ার নাটক করেছিলেন দেলোয়ার হোসেন।
গত শনিবার রাতে নিখোঁজ হয় উপজেলার বিয়াঘাট ইউনিয়নের বিয়াঘাট সরদার পাড়া এলাকার মৃত-রউফ হোসেনের ছেলে দেলোয়ার হোসেন।
দেলোয়ার হোসেনের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় একই এলাকার মৃত-ছইর প্রাং এর ছেলে লিফা প্রাং ও নজরুল প্রাং এবং লিফা প্রাং এর তিন ছেলে সানোয়ার হোসেন, আনোয়ার হোসেন ও বুলু হোসেনের নামে গুরুদাসপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন নিখোজ হওয়া দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী বিলকিছ বেগম। এ ঘটনায় লিফা প্রাং ও তার ভাই নজরুল প্রাং কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গুরুদাসপুর থানায় নিয়ে আসা হয়।
গুরুদাসপুর থানা পুলিশের টানা শাস্বরুদ্ধকর ১২ ঘন্টার অভিযানে দেলোয়ার হোসেনকে উদ্ধার করা হয় উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নের চোদ্দমাথা নামক এলাকা থেকে। এ ঘটনায় প্রতিপক্ষ লিফা প্রাং বলেন, আমাদের ফাঁসানোর জন্য মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে হয়রানী করেছে দেলোয়ার হোসেন। ২১ সেপ্টম্বর শনিবার সকালে দেলোয়ারের দোকানে চা খেতে যাই। সেখানে আমার বিল হয় ১০ টাকা। ৫ টাকা বকেয়া রাখার কথা বলতেই দেলোয়ার আমার সাথে অসাদাচরণ করে এবং গালাগালি করতে থাকলে আমার ওপর হামলা করে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য