ধর্ষককে সামাজিকভাবে বয়কট করতে আহবান জানিয়েছেন রংপুরের সম্মিলিত লেখক সমাজ


শরিফা বেগম শিউলী রংপুর প্রতিনিধিঃ

শনিবার বেলা ১১টায় নগরীর পাবলিক লাইব্রেরি’র সামনে ধর্ষন ও নিপীড়ন বিরোধী মানববন্ধন ও প্রতিবাদী কবিতা উচ্চারন কর্মসূচী থেকে এ আহবান জানানো হয়। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ধর্ষনকা- সামাজিকভাবে প্রতিরোধ করতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। শুধু আইনে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদ- করলেই হবে না বরং সমাজের মাতব্বর, জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিবিদ, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, আইনজীবীসহ সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্তাদের আন্তরিক হয়ে কাজ করলে অবশ্যই জঘন্যতম অপরাধ নির্মূল করা সম্ভব হবে। 

এজন্য প্রত্যেক শ্রেণি পেশার মানুষদের সচেতন হতে হবে। সেই সাথে দেশের নারী ও শিশু নির্যাতন আইন সংশোধন ও কার্যকর করতে হবে। বক্তারা আরো বলেন, নৈতিক অবক্ষয়ের কারনে আজকের পরিস্থিতি। এই পরিস্থিতি পরিবর্তনে প্রত্যেকটি পরিবারকে দায়িত্ব নিতে হবে, সমাজকে দায়িত্ব নিতে হবে, সামাজিক অবক্ষয় রোধ করতে হবে। নারীর প্রতি যে দৃষ্টিভঙ্গি তা পাল্টাতে হবে। তাহলে শুধু মাত্র সম্ভব ধর্ষণ রোধ করা।

সাহিত্য পত্রিকা মৌচাক এর প্রধান উপদেষ্টা রেজাউল করিম মুকুলের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন নাট্য ব্যক্তিত্ব আতোয়ারুজ্জামান লাঞ্চু, সাহিত্যিক ও শিক্ষাবিদ প্রফেসর মোহাম্মদ শাহ আলম, ছড়াকার আনিছুল হক, জাতীয় কবিতা পরিষদ রংপুরের সাধারন সম্পাদক মঞ্জিল মুরাদ লাভলু, অধ্যাপক ড. সুলতান তালুকদার, 

কবি ও লেখক রানা মাসুদ, কবি বাশার ইবনে জহুর, সাংবাদিক একেএম মইনুল হক, ছান্দসিক সাধারন সম্পাদক মমিন উদ্দিন পাটোয়ারি, নাট্য চক্রের সাধারন সম্পাদক হাসান আলী, অভিযাত্রিক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হোসেন, বিভাগীয় লেখক পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি এস এম সাথী বেগম, ছড়া সংসদ রংপরের সিনিয়র সহ-সভাপিত মতিয়ার রহমান, 

লেখক সংসদ রংপুরের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক রাকিবুল হাসান এলেন, ফিরে দেখা সম্পাদক সাকিল মাসুদ প্রমুখ। সঞ্চালনা করেন সম্মিলিত লেখক সমাজ রংপুরের সদস্য জাকির আহমদ ও রেজাউল করিম জীবন। মানববন্ধনে ধর্ষণ ও নিপীড়ন প্রতিরোধে প্রতিবাদী কবিতা পাঠ করেন হেলেন আরা সিডনী, কামরুন নাহার রেনু, হায়াত মাহমুদ মানিক, সোহানুর রহমান শাহিন, 

সাংবাদিক শাহ আলম, মারুফ হোসেন মাহবুব অনিন্দ আউয়াল, এটিএম মোর্শেদ, শাহিনা সুলতানা, এসএম সাথি বেগম, ফজলে রাব্বি, শরিফুল আলম অপু, সফুরা খাতুন, প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন রংপুরী, আবু ওবায়দা টিপু, সাব্বির নাফিজ, মিকদাদ, কাজল রায়, মৌ প্রমুখ।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদী কবিতা উচ্চারণ কর্মসূচী থেকে ধর্ষণ বন্ধে সামাজিকভাবে সচেতনতাবৃদ্ধিতে কবিতা, গল্প, ছড়া-প্রবন্ধ লেখা চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য