সৈয়দপুরে খুলে যাওয়া ট্রলির চাকার ধাক্কায় রেলওয়ের ট্রেন চালকের মৃত্যু

মিজানুর রহমান মিলন ষ্টাফ রিপোর্টারঃ
নীলফামারীর সৈয়দপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় দ্রুতগামী ট্রলির খুলে যাওয়া চাকার  ধাক্কায় মোটরসাইকেলে থাকা  রেলওয়ের সহকারী  লোকোমাষ্টারের (ট্রেন চালক) মৃত্যু হয়েছে। তাঁর নাম সুমন মোহাম্মদ তুষার (৩৫)। গতকাল রোববার রাত ৯ টায়   শহরের উপকন্ঠ সৈয়দপুর-পাবর্তীপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের চৌমুহনীবাজারে   মর্মান্তিক ওই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, গতকাল রবিবার রাতে সহকারি লোকোমাষ্টার সুমন মোহাম্মদ তুষার তাঁর এক বোন ও ভাগনিকে নিয়ে  সৈয়দপুর থেকে দিনাজপুর জেলার পাবর্তীপুর শহরের বাসায় ফিরছিলেন। রাত ৯টার দিকে মোটরসাইকেলটি নিয়ে তারা শহরের উপকন্ঠ সৈয়দপুর-পাবর্তীপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের চৌমুহনীবাজারে পৌঁছে। 

এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি দ্রুতগামী ট্রলির একটি চাকা খুলে যায়। পরে খুলে যাওয়া চাকাটি ওই মোটরসাইকেলে সজোরে ধাক্কা মারে। এতে ট্রলির চাকার ধাক্কায় সহকারি লোকোমাষ্টার সুমন মোহাম্মদ তুষারসহ সকলেই পড়ে যায়। এসময় বুকে মারাত্মক আঘাত পেলে ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় সহকারি ট্রেন চালক তুষার। 

মোটরসাইকেলে থাকা নিহতের বোন ও ভাগনিও গুরুত্বর আহত হয়। দূর্ঘটনার পরেই স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম জানা যায়নি। তবে নিহত তুষার দিনাজপুর জেলার  পার্বতীপুর উপজেলা শহরের রহমতনগর এলাকার মো. জুলফিকার আলীর  ছেলে। 

সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল হাসনাত খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ট্রলির চালক পালিয়ে গেলেও ট্রলিটি আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য