করোনায় আক্রান্ত ডাক্তারকে প্লাজমা দিলেন সিএমপি'র ট্রাফিক কনস্টেবল অরুন চাকমা

মোহাম্মদ হায়দার আলী, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
মানবিক পুলিশিং এর এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করল সিএমপি'র ট্রাফিক কন্সটেবল অরুন চাকমা।  করোনা ভাইরাসে  আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে  চিকিৎসাধীন ২জন ডাক্তার ডাঃ সামিরুল ও ডাঃ মুহিদ কে গত ২৮ মে,২০২০ইং তারিখে একই সাথে প্লাজমা দিলেন  কন্সটেবল অরুন চাকমা।

সিএমপি'র ট্রাফিক (উত্তর)  বিভাগে কর্মরত কনস্টেবল ২৩৫৪/অরুন চাকমা সিএমপি'র  প্রথম পুলিশ সদস্য যিনি করোনা ভাইরাস কে জয় করে গত ৩ মে ২০২০ইং চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে কর্মস্হলে যোগদান করেন।করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে গত ১৯/০৪/২০২০ইং তারিখে তাকে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশনে প্রেরণ করা হয়। 

সিএমপি'র উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সার্বিক  সহযোগিতা এবং ডাক্তার ও চিকিৎসাকর্মীদের আন্তরিক প্রচেষ্টায়  দীর্ঘ ১৪ দিনের চিকিৎসা শেষে দুইবার পরীক্ষায় তার করোনা ভাইরাস  নেগেটিভ আসলে তাকে গত ৩ মে  চট্টগ্রাম  জেনারেল  হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ  ছাড়পত্র প্রদান করেন। কোভিড-১৯  চিকিৎসার ক্ষেত্রে ঢাকার পরে চট্টগ্রামে শুরু হলো প্লাজমা পদ্ধতি প্রয়োগের। 

শুরুতেই চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে কর্মরত করোনা পজিটিভ দুজন ডাক্তারকে এ পদ্ধতিতে চিকিৎসা প্রদানের জন্য প্লাজমা দাতা খোঁজা হচ্ছিল। সিএমপি কমিশনার জনাব মোঃ মাহাবুবর রহমান বিপিএম, পিপিএম এর নির্দেশে এই দুইজন ডাক্তার কে প্লাজমা প্রদান করে কনস্টেবল অরুন চাকমা মানবিক পুলিশিং এ এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করল।

ডাক্তার বাঁচলে আমরা বাঁচবো। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ যুদ্ধের সম্মুখ যোদ্ধা সম্মানিত ডাক্তারগনদের প্রতি সিএমপি'র  এই ভালোবাসার উপহার দেশের সর্বস্তরের জনগণকে এই দূর্দিনে ডাক্তারদের পাশে থাকার বিষয়ে উদ্বুদ্ধ করবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

জনসংযোগ শাখা, সিএমপি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য