লালপুরে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষন : আটক ২

নিজস্ব প্রতিবেদক, লালপুর
নাটোরের লালপুরে কুমারী অন্তর রাণী অর্পিত্য (১৫) নামের এক স্কুল ছাত্রী ধর্ষনের স্বীকার হয়েছে। এঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ ।
বুধবার রাতে অর্পিত্যর মা রিতা রাণী বাদী হয়ে আবু বক্কর সিদ্দিক (৩২) ও তালেব (২৭) এর বিরুদ্ধে লালপুর থানায় ধর্ষনের অভিযোগ মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাদেরকে আটক করেন ।
উপজেলার পালিদোহা গ্রামের আব্দুল হাই এর ছেলে আবু বক্কর ও একই গ্রামের আদাবরের ছেলে তালেব ।
মামলা সূত্র জানায়, গত ১২ সেপ্টেম্বর উপজেলার পালিদোহা গ্রামের অমিত কুমারের কণ্যা কুমারী অন্তর রাণী অর্পিত্য বাড়ী থেকে স্কুলে যাওয়ার পথে আবু বক্কর ও তালেব তাকে জোর করে তুলে নিয়ে যায় । পরে অর্পিত্যকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে এবং তার পিতা অমিত কুমার ও মাতা রিতা রাণীকে হুমকি দিয়ে বলে বিষয়টি কাউকে না বলতে।
পরে বিষয়টি জানাজানি হলে, বুধবার রাতে অর্পিত্যর মা রিতা রাণী বাদী হয়ে পালিদোহা গ্রামের আব্দুল হাই এর পুত্র আবু বক্কর ও একই গ্রামের আদাবরের পুত্র তালেব এর বিরুদ্ধে লালপুর থানায় ধর্ষনের অভিযোগ মামলা দায়ের করেন।
পরে তাদেরকে লালপুর থানা পুলিশ আটক করে । বৃহস্পতিবার সকালে বক্কর ও তালেবকে থানা পুলিশ নাটোর আদালতে প্রেরণ করেন । কুমারী অন্তর রাণী অর্পিত্য আড়মবাড়ীয়া ভোকেশনাল স্কুলের ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ।
এবিষয়ে লালপুর থানার ওসি সেলিম রেজা বলেন, ধর্ষনের মামলায় আবু বক্কর ও তালেবকে আটক করা হয়েছে এবং সকালে তাদের নাটোর আদালতে পাঠানো হয় ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য